Friday, August 4, 2017

The best Husband finding shop for female

নিউইয়র্ক-এ সম্প্রতি একটা শো-রুম চালু হয়েছে। যেটার নাম হলো "Husband ফর Sale.
এখানে বিভিন্ন ধরনের পুরুষরা রয়েছেন, মেয়েরা এখান থেকে নিজের পছন্দ অনুযায়ী পতি পছন্দ করতে পারবে।
.
সেখানের নিয়ম হলো--
১) যে কোন মহিলা সেখানে একবারই মাত্র প্রবেশাধিকার পাবেন।
২) এখানে ৬ টি ফ্লোর আছে এবং মহিলারা যে কোন ফ্লোর থেকে নিজের পতি নির্বাচন করতে পারেন।
তবে ২য ফ্লোর অতিক্রম করে ৩য় ফ্লোরে গিয়ে যদি পতি পছন্দ না হয়, তাহলে ঐ মহিলা তার উপরের ফ্লোরে যেতে পারেন, কিন্তু যে ফ্লোর তিনি ইতিমধ্যে অতিক্রম করে চলে গেছেন সেখান থেকে আর পতি নির্বাচন করতে পারবেন না। অর্থাত উপরের ফ্লোরের পতি পছন্দ না হলে পুনরায় নিচের ফ্লোরে এসে পতি পছন্দ করা যাবে না।
.
.
.
এক মহিলা গেছেন নিজের জন্য পতি পছন্দ করতে গিয়ে দেখলেন....
১ম ফ্লোরে লেখা আছে-- এখানের পুরুষরা চাকুরীজীবী ও তারা ঈশ্বরে বিশ্বাসী।
মহিলাটি তারপর দ্বিতীয় ফ্লোরে গেলেন। ২য ফ্লোরে লেখা আছে-- এখানের পুরুষরা চাকুরিজীবি, ঈশ্বর বিশ্বাসী ও শিশু প্রেমিক।
মহিলাটি ধীরে ধীরে ৩য ফ্লোরের দিকে অগ্রসর হলেন...
৩য ফ্লোরে লেখা আছে- এখানের পুরুষরা চাকুরিজীবি, ঈশ্বর বিশ্বাসী, শিশু প্রেমিক ও খুব রুপবান।
মহিলাটি আরেকটু ভালো পতি নির্বাচনের আশায় ৪র্থ ফ্লোরে গেলেন...
সেখানে লেখা রয়েছে-- এখানের পুরুষরা চাকুরিজীবি, ঈশ্বর বিশ্বাসী, শিশু প্রেমিক, রুপবান এবং তারা স্ত্রীকে গৃহ কর্মে সাহায্য করতেও আগ্রহী।
যতই উপরের দিকে যাচ্ছেন গুণধর পতিদের সন্ধান মিলছে দেখে উচ্ছ্বসিত হয়ে মহিলা ৫ম ফ্লোরের দিকে পা বাড়ালেন ...
সেখানে লেখা রয়ছে --
এখানের পুরুষরা চাকুরিজীবি, ঈশ্বর বিশ্বাসী, শিশু প্রেমিক, রুপবান, তারা স্ত্রীকে গৃহ কর্মে সাহায্য করতেও আগ্রহী আর তারা খুব রোমান্টিক ভাবনার পুরুষ।
এখানেই মহিলাটির শেষ গন্তব্য হওয়া উচিত ছিল,
কিন্তু তবু তিনি ৬ নং ফ্লোরে গেলেন আরো গুণধর পতির সন্ধানের আশায়।
.
.
.
সেখানে লেখা রয়েছে-- "দু:খিত আপনি এখানের ৪৩৬৩০১২৩ নম্বর visitor. যারা নিজের জন্য পতি নির্বাচনের বাসনা নিয়ে এখানে এসেছিলেন,
কিন্তু দু:খিত এখানে নির্বাচন করার মত কোন পুরুষ নেই। এই ফ্লোরটা আমাদের শো-রুমের কোন অঙ্গ নয়। এই ফ্লোরটা রাখা হয়েছে শুধু এটা প্রমান করার জন্য যে মেয়েদের সন্তুষ্ট করাটা কতবড় একটা অসম্ভব ব্যাপার।

তারা যখন অজ্ঞান হয়ে পড়ে তখন তাদের চুল কাটা হয়ে গেছে



হরিয়ানা এবং রাজস্থান উত্তর ভারতীয় রাজ্যের 50 টিরও বেশি মহিলা রিপোর্ট করেছেন যে তারা যখন অজ্ঞান হয়ে পড়ে তখন তাদের চুল কাটা হয়ে গেছে। বিবিসির উন্নয়ন পান্ডে জানায়, নারীরা ক্ষতিকারক এবং চিন্তিত রহস্যের রহস্যের সমাধান করতে পুলিশ চেষ্টা করছে।
হরিয়ানাের গুরগাঁও জেলার ভীমগড় খেরি এলাকার 53 বছর বয়েসী গৃহবধূ সুনিতা দেবী বলেন, "একটি আলোর জ্বলন্ত আলো আমাদের অজ্ঞান করে রেখেছিল। এক ঘণ্টা পরে, আমি দেখলাম যে, আমার চুলও আটকানো হয়েছে"।
শুক্রবার "আক্রমণ" তার traumatized বাকি আছে।
তিনি বলেন, "আমি ঘুমাতে বা কিছুটা মনোনিবেশ করতে পারছি না। রাজস্থানে এই ধরনের ঘটনা ঘটছে, কিন্তু আমার মনে হয় না যে এটা ঘটবে।"
"ফ্যান্টম barbers" এর রিপোর্টগুলি রাজস্থান থেকে জুলাই মাসের প্রথম দিকে এসেছিল, কিন্তু একই রকম ঘটনাগুলির একটি হরতালের খবর পাওয়া যাচ্ছে এবং এমনকি দিল্লি রাজধানীও।
সুনিতা দেবী ব্যবসায়ী ও চাষীদের ঘনিষ্ঠ জনগোষ্ঠীর মধ্যে বসবাস করেন।
তার প্রতিবেশীদের মধ্যে কেউ কেউ তার সাথে থাকার জন্য তার দিকে ফিরে তাকায় না যতক্ষন না সে শক থেকে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হয়।
তিনি বলেন তার আক্রমণকারী একটি বয়স্ক মানুষ ছিল "উজ্জ্বল রংয়ের পোশাক পরা"।
"আমি বাড়ির ভিতরের তলায় একা ছিলাম, এবং আমার পশুর নাতি ও নাতি ছিল ঊনবিংশ শতাব্দীর কাছাকাছি সময়ে।"
তারা দেখেছিল এবং কিছুই শুনিনি।চিত্রের শিরোনাম মুনেশ দেবী বলেছেন সমাজে ভয় আছে
রহস্যটা গভীর হয়ে যায় যখন আমি জিজ্ঞাসা করি যে অন্য কেউ আক্রমণকারী দেখেছে।
সুনিতা দেবীের প্রতিবেশী মুন্নেশ দেবী বলেছেন যে, সংকীর্ণ গলিটি প্রায় ২0 টি ঘর আছে, যা সাধারণত ২1:00 এবং ২২.২0 এর মাঝামাঝি হয়।
"লোকজন রাতের খাবারের পর একসাথে কথা বলতে ও শিথিল করার জন্য একত্রিত হয়। শুক্রবার কোনও আলাদা ছিল না, কিন্তু আমাদের কেউই কোন অজানা ব্যক্তিকে সুনিতার ঘরে প্রবেশ বা বেরিয়ে আসতে দেখেনি"।তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো:

    
বুরকাস বা বাস আসন? কিভাবে একটি ফটো একটি ইন্টারনেট আলোড়ন সৃষ্টি করে
    
গ্রহ সুরক্ষা সংস্থান চাই, উদার বেতন
    
ডায়েরি মার্কিন মহিলার শেষ আকাঙ্ক্ষা মৃত্যুর অনুদান
এবং এটি সেখানে শেষ না
মাত্র কয়েক গজ দূরে, গৃহকর্তা আশা দেবী পরের দিন একই রকম আক্রমণে তার চুল হারিয়েছেন।
কিন্তু এই সময় হামলাকারী একজন মহিলা বলেছিলেন
আশা দেবী এর শ্বশুর, সুরজ পাল, এই ঘটনার পর, তিনি উত্তর প্রদেশের একটি আত্মীয়ের বাড়ির কাছে তার পরিবার এবং তার পরিবারের অন্যান্য মহিলাকে পাঠিয়েছিলেন।
"আক্রমণের পর তারা এত বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছিল, আমি তাদেরকে কয়েক সপ্তাহের জন্য দূরে থাকতে বলেছিলাম। সম্প্রদায়ের মধ্যে ভয় আছে," তিনি বলেন।
জনাব পল বলেছেন, আশপাশ দেবী ২২.২0 এর কাছাকাছি একটি ঘরের কাজ সম্পন্ন করার জন্য বাইরে গিয়েছিলেন।
"আমি 30 মিনিটেরও বেশি সময় ধরে ফিরে আসিনি যখন তাকে খুঁজে বের করতে বাইরে গিয়েছিলাম। আমরা তার বাথরুমে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেলাম। তার চুল কাটা এবং মাটিতে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছিল," তিনি বলেন।চিত্র কপিরাইট EPAদিল্লিতে ছবির ক্যাপশন হামলাও হয়েছে
তিনি যোগ করেন যে আশায় এক ঘণ্টা পরে চেতনা লাভ করে এবং তাকে বলে যে একজন মহিলা তার উপর হামলা করেছে।
"তিনি আমাকে বলেছিলেন যে সবকিছু 10 সেকেন্ডের কম সময়ে ঘটেছে," তিনি বলেন।
গুড়গাঁও থেকে 70 কিলোমিটার (43 মাইল) কাছাকাছি - রেওয়ারী জেলার গ্রামীণ এলাকায় আমি একই রকম অবস্থা দেখেছি। এই কয়েক:

    
জনাওয়াসা গ্রামের ২8 বছর বয়সী রেনা দেবী বলেন, বৃহস্পতিবার তাকে আক্রমণ করা হয়েছিল। এবং আক্রমণকারী এই সময় একটি বিড়াল বলে মনে হচ্ছে। তিনি বলেন, "আমি আমার কাজগুলো করছিলাম যখন আমি একটি বড় আকৃতির একটি বিড়ালের মতো দেখেছিলাম। তারপর আমি অনুভব করলাম যে কেউ আমার কাঁধে স্পর্শ করছে, আর এটাই আমার শেষ কথা," সে বলে। তিনি সম্মত হন যে তার "গল্প বিশ্বাস করা কঠিন"। "আমি জানি এটা অসম্ভব বলে মনে হচ্ছে কিন্তু আমি দেখেছি যে কিছু মানুষ বলেছে আমি আমার চুল কাটতেছি, কিন্তু কেন আমি তা করব?" সে জিজ্ঞাস করলো.
    
শনিবার সকালে খোরখারী গ্রামে সুদর্শন দেবী (60) সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তিনি বলেন, "আমি একজন প্রতিবেশীর ঘরে গিয়েছিলাম যখন কেউ আমার পিছন থেকে কাঁধে চাপ দিয়েছিল। আমি যখন ফিরে তাকালাম তখন কেউ ছিল না।
    
রিমা দেবী, ২8, বলেন, বৃহস্পতিবার তার ফোনে একটি খেলা খেললে তার চুল কাটল। "আমার স্বামী এবং ছেলেমেয়েরাও রুমের মধ্যে ছিল। আমি আমার চুলের টান অনুভব করেছিলাম এবং যখন আমি পিছন ফিরে তাকালাম তখন আমার চুল মাটিতে ছিল।"
'গণ বিক্ষোভ'
গুরগাঁও পুলিশ মুখপাত্র রবিন্দ্র কুমার বলেন যে অভিযোগের তদন্ত করা হচ্ছে।
"এই বিস্ময়কর মামলা। আমরা অপরাধের দৃশ্যগুলিতে কোন সূত্র খুঁজে পাইনি, শিকারের মেডিকেল পরীক্ষাগুলি অস্বাভাবিক কিছু দেখায় না", তিনি বলেন, যে কেউ আক্রমণাত্মক আক্রমণাত্মক দেখেছি বলে মনে হচ্ছে না।
শ্রীমতি কুমার বলেন যে বিভিন্ন জেলার পুলিশ এই ঘটনার "কিছু জ্ঞান" প্রচেষ্টা সমন্বয় সাধন করছে।
"শুধুমাত্র শিকার বলছেন যে তারা আক্রমণকারীদের উপস্থিতি দেখেছে বা অনুভব করেছে। আমরা এই ক্ষেত্রে নিচের দিকে আছি, কিন্তু তখন পর্যন্ত, আমি জনগণকে গুজবগুলির মধ্যে বিশ্বাস করতে উদ্বুদ্ধ করতে চাই না"।ছবিটির শিরোনাম সুন্দরবন, 60, শনিবারে শনিবারের হামলা থেকে বেদনাদায়ক হয়েছেচিত্র কপিরাইট EPAচিত্র ক্যাপশন দিল্লির কিছু অংশে নারী তাদের চুল রক্ষা করার জন্য দেবতাদের ছবি সম্বলিত ব্যান্ড ব্যবহার করছে
এবং গুজরাট সংক্ষিপ্ত সরবরাহ না।
আমি এক গ্রাম থেকে অন্য দেশে ভ্রমণ করছিলাম, আমাকে আক্রমণের জন্য বিভিন্ন তত্ত্ব দেওয়া হয়েছিল।
এক গ্রামে, একজন বয়স্ক মানুষ

Thursday, August 3, 2017

শুক্রাণুর সংখ্যা বা স্পার্ম রেট কমে আসছে সারা বিশ্বের পুরুষদের শরীরে।

 




 
শুক্রাণুর সংখ্যা বা স্পার্ম রেট কমে আসছে সারা বিশ্বের পুরুষদের শরীরে। শুক্রাণু কমে যাবার এই হার যদি বজায় থাকে তাহলে মানব সভ্যতা বিলুপ্ত হয়ে যাবে, হুঁশিয়ার করেছেন এক ডাক্তার। প্রায় ২০০টি গবেষণা থেকে সংগৃহীত তথ্য থেকে জানা গেছে ৪০ বছরেরও কম সময়ের মাঝে অর্ধেকে নেমে এসেছে পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের পুরুষদের ওপর করা হয়েছিল এসব গবেষণা। তথ্য সংগ্রহের এই গবেষণার নেতৃত্বে থাকা ডঃ লেভিন জানান, এর ভবিষ্যৎ নিয়ে তিনি খুবই চিন্তিত। এই তুলনামূলক গবেষণাটি করা হয় ১৯৭৩ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত করা ১৮৫টি গবেষণা থেকে নেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে। ডঃ লেভিন একজন এপিডেমিওলজিস্ট। বিবিসিকে তিনি জানান, এভাবে স্পার্ম কাউন্ট কমতে থাকলে মানুষ বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে। “একটা সময়ে এটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে, আর তাতে মানব প্রজাতির বিলুপ্তিও দেখা যেতে পারে।“ এই গবেষণার কথা জানতে পেরে অন্যান্য গবেষকেরা জানান, তাদের কাজ খুবই ভালো কিন্তু এখনই বলে দেওয়া যায় না যে মানবজাতি বিলুপ্ত হয়ে যাবে। জেরুজালেমের হিব্রু ইউনিভার্সিটির ডঃ লেভিন দেখেন, শুক্রাণুর ঘনত্ব কমে এসেছে ৫২.৪ শতাংশ এবং স্পার্ম কাউন্ট কমে এসেছে ৫৯.৩ শতাংশ। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে বসবাসরত এসব পুরুষের মাঝে স্পার্ম কাউন্ট কমে যাবার এই ধারা অব্যাহত রয়েছে এমনকি তা কমে যাবার হার আরো বেড়ে চলেছে।

Wednesday, August 2, 2017

North Koria Missile range!


Despite the ongoing tests, most experts believe Pyongyang does not yet have the capability to miniaturise a nuclear warhead, fit it on to a long-range missile, and ensure it is protected until delivery to the target.
They say many of North Korea's missiles cannot accurately hit targets.
Others, however, believe that at the rate it is going, Pyongyang may overcome these challenges and develop a nuclear weapon within five to 10 years that could strike the US.

The playground for big kids only

The playground for big kids only

 
 

A pop-up playground where kids are not allowed in has opened in London Fields.


Beaten up for being gay

Beaten up for being gay






Fifty years ago, gay sex between men in private was decriminalised in England and Wales. Despite this, hate crimes against gay people have persisted, and the number of attacks recorded by police has been rising. There were 7,194 in England and Wales in the year to April 2016. Campaigners say this isn't the full picture, though, as many victims still don't report assaults. Six people affected by hate crimes share their stories.
Warning: This story contains details of violence and images which some readers might find upsetting.
James and Dain were enjoying a night out together in Brighton in May 2016 when they were followed out of a nightclub and attacked on the seafront. The assault has left physical and emotional scars.
James: We were at the bar and we got this look from a couple of guys from across the dance floor. It takes a lot to make me feel uncomfortable but it was just such a weird look they gave us. Dain had his arm around me. I don't think they liked that. Then they started shouting at us. I told Dain we needed to get out of the club into a taxi the quickest way possible.
Dain: We left the bar. No-one was about. All of a sudden I heard running behind us. There was no way we were going to outrun them. They grabbed us from behind and chucked us to the floor. I was lying on the pavement and all I could see was James but the next thing I saw was a shoe coming towards my face. That knocked me completely unconscious.
James: One of the boys started kicking Dain's face really rapidly. There was a lot of aggression and shouting of "gay boys". Every time I tried to crawl closer to Dain, I was dragged along the pavement. At that point, a taxi drove past and called the police. I remember standing up for the first time and Dain looked at me and said, "I can't see."
Dain: My eye socket was completely shattered. I had haemorrhages in both my eyes and fractures on my cheeks. My tooth was chipped and my nose was broken as well. I remember being in hospital and kept asking, "Am I going to be able to see again?" They said, "We can't tell you because everything is so swollen." They couldn't even open my eyes.

Tuesday, August 1, 2017

এক পরিবারের ‘সবাই চোর’ !!!!!

এক পরিবারের ‘সবাই চোর’ !!!!!



রোববার রাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে নগরীর প্যারামাউন্ট ইন্টারন্যাশনাল হোটেল থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মীর্জা সায়েম মাহমুদ জানান।

একশ টাকার প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত


একশ টাকার প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত

 

 

সোমবার ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই ড্র অনুষ্ঠিত হয়।
প্রাইজবন্ডের ৬ লাখ টাকার প্রথম পুরস্কারপ্রাপ্ত নম্বর হচ্ছে ০৫৪৭৩৬৬।
প্রাইজবন্ডের ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকার দ্বিতীয় পুরস্কারের নম্বর ০৩৯৯৬৫০।

একক সাধারণ পদ্ধতিতে (অর্থাৎ প্রত্যেক সিরিজের জন্য একই নম্বর) এই ‘ড্র’ পরিচালিত হয় এবং বর্তমানে প্রচলনযোগ্য ১০০ টাকা মূল্যমানের ৪৮টি সিরিজ যথা-কক, কখ, কগ, কঘ, কঙ, কচ, কছ, কজ, কঝ, কঞ, কট, কঠ, কড, কঢ, কথ, কদ, কন, কপ, কফ, কব, কম, কল, কশ, কষ, কস, কহ, খক, খখ, খগ, খঘ, খঙ, খচ, খছ, খজ, খঝ, খঞ, খট, খঠ, খড, খঢ, খথ, খদ, খন, খপ, খফ, খব, খম, এবং খল এই ‘ড্র’ এর আওতাভূক্ত।
এসব সিরিজের অন্তর্ভূক্ত ৪৬টি সাধারণ সংখ্যা পুরস্কারের যোগ্য বলে ঘোষিত হয়।
এক লাখ টাকা করে দুটি তৃতীয় পুরস্কারের নম্বর হচ্ছে ০৮২৭৬৫০ ও ০৯৫৬৬২৮। প্রতিটি ৫০ হাজার টাকা করে দুটি চতুর্থ পুরস্কারের নম্বর ০১৯৭৯৭৯ ও ০৭৫৬৯৪৮।
প্রতিটি ১০ হাজার টাকা করে ৪০টি পঞ্চম পুরস্কারের নম্বর:
০০০৪১৭০, ০২৪১৫৮৯, ০৪১৩২৩৫, ০৬১৭৬১০, ০৮০০৯১৪, ০১০৩৬৭০, ০২৫৭৫০৭, ০৪৯৬৫১৫, ০৬১৯৩৫০, ০৮১৫৯৯৩, ০১৩৬৮০৬, ০২৭১৩৭৮, ০৫১৩৯৯২, ০৬২১৫২৮, ০৮৪০৭৭৩, ০১৭৮১৬৯, ০২৯৩০৯৮, ০৫১৫১৭৭, ০৬২৮৫৫৭, ০৮৪৫০১৮, ০১৮১৭২০, ০৩০৩২৫৪, ০৫৮৪৫২১, ০৭৩২১১৭, ০৯০৭১০৩, ০১৮২১২৯, ০৩৩৬৭৫৭, ০৫৯১৪৪২, ০৭৪২৭০০, ০৯২০০৭৫, ০২১৩৫৫১, ০৩৫২৭১০, ০৫৯৬৯০০, ০৭৫২৪১৬, ০৯২৯৮৯৯, ০২৩১৩৯৮, ০৩৬১১২৫, ০৬১২৪৭২, ০৭৭৮৪১৫, ০৯৭৭৯৭৭

 

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে আসছেন ইউএনও তারিক সালমন

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে আসছেন ইউএনও তারিক সালমন

 

বরগুনা সদরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দায়িত্ব পালন করে আসা এই কর্মকর্তাকে বদলি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সোমবার আদেশ জারি করে।

ফেইসবুকে ছাগল ও মন্ত্রী নিয়ে স্ট্যাটাস, সাংবাদিক কারাগারে

ফেইসবুকে ছাগল ও মন্ত্রী নিয়ে স্ট্যাটাস, সাংবাদিক কারাগারে

 

মঙ্গলবার সকালে আব্দুল লতিফ মোড়লকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।  

 

Dheere Dheere Yo Yo Honey Singh HD 720p






It is a famous old song. It is now make new style. So if you see  that, you will enjoy.

Banjaara Full Video

Sunday, July 30, 2017

Chitagong Dorbar Restuarent In Khulna

Chitagong Dorbar Restuarent In Khulna



It is a good restuarent in zero ponit of Khulna bypass road, See details in http://digitalsolution.epizy.com/wordpress/places/bangladesh/khulna-division/khulna/restaurants/chitagong-border/

বাগেরহাটে সম্ভাব্য প্রার্থী যারা

বাগেরহাটে সম্ভাব্য প্রার্থী যারা, ব্রেকিংনিউজ.কম.বিডি

 

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তারা নিজেদের প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি জানান দিচ্ছেন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের কাছে টানার পাশাপাশি নানা উপায়ে সাধারণ ভোটারদের মনোযোগ আকৃষ্ট করতে ব্যস্ত তারা। কিছু আসনে কেন্দ্র থেকেই অনেককে ইতোমধ্যে সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে।

এ নির্বাচন আওয়ামী লীগের জন্য প্রধান চ্যালেঞ্জ হলেও প্রধান বিরোধী জোট বিএনপি তথা ২০ দলীয় জোটের বাঁচা মরার লড়াই হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা । যদিও বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে শেখ হাসিনার অধীনে নয়, একটি নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। তবেই তারা নির্বাচনে অংশ নেবে। তারপরেও নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি।

বাগেরহাটের ৪টি সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে জোর আলোচনা চলছে। আওয়ামী লীগের জন্য চ্যালেঞ্জ হচ্ছে আসনগুলো ধরে রাখা। আর বিএনপি চেষ্টা করবে আসনগুলোতে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন করা। তাই দু’দলই যোগ্য প্রার্থীদেরকে মনোনয়ন দিবে এমনটাই আশা করছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা।

মোল্লারহাট-ফকিরহাট-চিতলমারী নিয়ে বাগেরহাট-১ আসন। এ আসনে সংখ্যালঘুদের সংখ্যাই বেশি। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারই। কোন কারণে তিনি এ আসনে নির্বাচন না করলে তার ফুফাতো ভাই শেখ হেলালের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী সাবেক এমপি জেলা বিএনপির উপদেষ্টা শেখ মুজিবর রহমান ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাড. শেখ ওয়াহিদুজ্জামান দিপু।

বাগেরহাট সদর ও কচুয়া নিয়ে বাগেরহাট-২ আসন। এখানে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হতে পারেন বর্তমান এমপি মীর শওকত আলী বাদশা। বিএনপির প্রার্থী হতে পারেন দুজন। তারা হলেন, জেলা বিএনপির সভাপতি এম এ ছালাম ও জেলার সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম খান।

মংলা- রামপাল নিয়ে বাগেরহাট-৩। এ আসনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান এমপি তালুকদার আব্দুল খালেক ও তার সহধর্মীনি মিসেস হাবিবুন নাহার। বিএনপি সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ প্রচার সম্পাদক শামীমুর রহমান, জেলার সহ সভাপতি ড. ফরিদুল ইসলাম।

মোড়েলগঞ্জ- শরণখোলা নিয়ে বাগেরহাট-৪ আসন। এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের জেলা সভাপতি ও এমপি ডা. মোজাম্মেল হোসেন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাড. আমিরুল আলম মিলন ও ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগের নাম সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে শোনা যাচ্ছে। বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন, সাবেক ছাত্রনেতা ও জেলা বিএনপির উপদেষ্টা আলহাজ্ব ডক্টর কাজী মনিরুজ্জামান মনির, বিএনপি কেন্দ্রীয় শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল ইসলাম, জেলার সহ-সভাপতি এমএ খালেক এবং জামায়াত নেতা শহিদুল ইসলাম।

সম্ভাব্য এ প্রার্থীরা দৌড়ঝাঁপ শুরু করলেও যোগ্য লোককেই মনোনয়ন দিবে দেশের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক এ দু’দল। অন্যদিকে যারা সাধারণ মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়াবেন, এলাকার উন্নয়নে অবদান রাখবেন তাদেরকেই ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনবেন বলে জানান স্থানীয় ভোটাররা।

 

 

 

সৌদিতে ৬ বাংলাদেশি (breakingnews.com)

সৌদিতে ৬ বাংলাদেশি নিহত

 
 

ঢাকা: সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। সৌদি সময় বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) রাতে দাম্মাম থেকে রিয়াদ যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (শ্রম) সারওয়ার আলম দুর্ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ওই বাংলাদেশিরা কাজের সন্ধানে দাম্মাম থেকে রিয়াদ যাচ্ছিলেন। এ সময় তাদের বহনকারী গাড়িটিকে আরেকটি গাড়ি ধাক্কা দিলে দুর্ঘটনা ঘটে। গাড়িতে থাকা ২ বাংলাদেশি ঘটনাস্থলে মারা যান। হাসপাতালে নেয়ার পর আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়।

নিহত ৪ জনের বাড়ি রাজবাড়ী জেলায়। এরমধ্যে ২ ভাই ইরশাদ ব্যাপারী (২৮) ও হুমায়ুন ব্যাপারী (২৫) গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের দরাপের ডাঙ্গি এলাকার আহেদ ব্যাপারীর ছেলে।

অন্য দু’জন হলেন ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ উজানচর নাছির মাতব্বর পাড়ার ওসমান খানের ছেলে কুব্বাত খান (২৫)  এবং দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের আনসার মাঝি পাড়ার সহের মন্ডলের ছেলে মিরাজ মন্ডল (২২)।

নিহত অপর দু’জন ফরিদপুর সদর উপজেলার বাসিন্দা। তাদের একজন নথচ্যানেল ইউনিয়নের আরান দেওয়ানের ছেলে ইদ্রিস দেওয়ান (৩২), অপরজন হাজীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেলেও তার নাম-পরিচয় নিশ্চিত করেনি দূতাবাস।